১৪ দিন পর উদ্ধার হলো আমানত শাহ ফেরি

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট : মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে ডুবে যাওয়ার ১৪ দিন পর আমানত শাহ ফেরিটি উদ্ধার করল বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জেনুইন এন্টারপ্রাইজ।

মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) দুপুর ৩ টার দিকে সম্পূর্ণ ফেরিটি পানি থেকে ওপরে ওঠানো হয়। আপাতত ফেরির তলায় ১০০ টি ছিদ্র মেরামত করে পানির ওপর ভাসমান অবস্থায় রাখা হয়েছে। পর্যবেক্ষণের জন্য আরও দুই তিন এভাবে রাখার পর আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরিটি হস্তান্তর করা হবে।

বিআইডব্লিউটি এর যুগ্ম পরিচালক (উদ্ধার) মো. ফজলুর রহমান বলেন, উদ্ধারকৃত ফেরিটি আরও দুই দিন পর্যবেক্ষণে রাখার পর নতুন কোনো সমস্যা দেখা না দিলে কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করব। বেসরকারি উদ্ধারকারী সংস্থা জেনুইন এন্টারপ্রাইজ ঘটনার ১৪ দিনের মাথায় সম্পূর্ণ ফেরিটি ওঠাতে সক্ষম হয়েছে।

জেনুইন এন্টারপ্রাইজের প্রধান নির্বাহী (সিও) বদিউল আলম বলেন, সোমবার ফেরিটি উদ্ধারের ৮৫ ভাগ কাজ শেষ হয়েছিল। মঙ্গলবার ফেরির ভেতরে জমে থাকা পানি বাইরে বের করা হয় এবং ফেরি নিচের দিকে ৩০ টি ছিদ্র মেরামত করা হয়। মঙ্গলবার দুপুর ৩ টার দিকে বাকি ৭০টি ছিদ্র মেরামত শেষ করা হয়। পরে উইং বার্জ দিয়ে ফেরির পেছনের ইঞ্জিনের অংশ দুপুর ৩ টার দিকে পানির নিচ থেকে ওঠানো হয়। দুই দিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ফেরিটি বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য গত ২৭ অক্টোবর সকালে দৌলতদিয়া থেকে পাটুরিয়া আসার পর পাঁচ নম্বর ফেরি ঘাটে ১৪ টি যানবাহন ও কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে উল্টে ডুবে যায় আমানত শাহ ফেরিটি। বিআইডব্লিউটি এর উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তম ও হামজা সবগুলি যানবাহন উদ্ধার করে। পরে ফেরিটি তুলতে বিআইডব্লিউটি এর মৌখিক চুক্তি করে জেনুইন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড এর সঙ্গে।

 

 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *