২৭ মিলিয়ন ডলারে কৃষ্ণাঙ্গ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড মামলার নিষ্পত্তি

আন্তর্জাতিক জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশের হাতে নিহত কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডের পরিবারকে ২৭ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মিনিয়াপোলিস নগর কর্তৃপক্ষ। এর মাধ্যমে এই মামলার নিষ্পত্তি হবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সিএনএন।

২০২০ সালের ২৫ মে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে ফ্লয়েডকে আটক করে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিশ শহরের পুলিশ। এসময় ডেরেক চৌভিন নামের এক শ্বেতাঙ্গ পুলিশ তার ঘাড় হাঁটু দিয়ে সড়কে চেপে ধরেন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

সেসময়ে বাঁচার আকুতি জানিয়ে ফ্লয়েড বলছিলেন ‘আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না’। তারপরও ওই পুলিশ কর্মকর্তা তাকে মুক্তি দেননি। এই ঘটনার পর বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভ হয়। সূচনা হয় ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার এর।

ফ্লয়েডের পরিবারের আইনজীবী বেনজামিন ক্রাম্প বলেছেন, বিচার শুরুর আগে মৃত্যু মামলার নিষ্পত্তির ঐতিহাসিক ঘটনা এটি। এই ক্ষতিপূরণ যুক্তরাষ্ট্রকে শক্তিশালী বার্তা দেয় যে, কালোদের জীবনেরও মূল্য আছে। কালোদের ওপর পুলিশি বর্বরতার অবসান ঘটাতে হবে।

ক্ষতিপূরণের ঘোষণার পর ফ্লয়েডের বোন ব্রিজেট ফ্লয়েড এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ন্যায়বিচার পাওয়ার এই কঠিন যাত্রায় একটা সমাধানে পৌঁছাতে পেরে আমার পরিবার সন্তুষ্ট। আমাদের হৃদয় ভাঙার পরও আমরা জেনে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছি যে, জর্জ ফ্লয়েড বিশ্বকে দেখিয়েছে কিভাবে বেঁচে থাকতে হয়।’

ফ্লয়েডকে হত্যার ঘটনায় চাকরিচ্যুত করা হয় পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চৌভিনকে। তার বিচার আদালতে চলমান রয়েছে। তবে চৌভিন তার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার বলে বলেছেন, তিনি তার পুলিশি প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়েছেন। তিনি অপরাধী নন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *