৩০২ কেজি ওজন নিয়ে জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাখন মিয়া

সারাবাংলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : অস্বাভাবিক ওজন নিয়ে জীবন যুদ্ধে হেরে অবশেষে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন ৩০২ কেজি ওজনের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাখন মিয়া। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়ে ছিল ৪০ বছর। গতকাল সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) রাত ১০টার দিকে ব্রাহ্মনবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। মাখন মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শহরের দক্ষিণ মৌড়াইলের মিলন মিয়ার ছেলে।

মাখন মিয়া জীবনের শুরুতে ওজন স্বাভাবিক থাকলেও পরে ধীরে ধীরে তা বাড়তে থাকে। মৃত্যুকালে তার ওজন দাঁড়ায় ৩০২ কেজি। অস্বাভাবিক এই ওজন নিয়ে মানবেতর দিন কাটিয়ে ছিল মাখন মিয়া। অবশেষে ওজনের কারণে জীবন যুদ্ধে হেরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন মাখন মিয়া।

মাখন মিয়ার পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন যাবৎ মাখন মিয়া শ্বাসকষ্ট ও হৃদরোগে ভুগছিলেন। ২০ বছর বয়স পর্যন্ত স্বাভাবিকই ছিল মাখন মিয়া। তারপর হঠাৎ বাড়তে থাকে তার শরীরের ওজন। শেষ পর্যন্ত তার ওজন ৩০২কেজিতে থামেন। চিকিৎসাও করেছেন একাধিকবার, কিন্তু অস্বাভাবিক ওজনের কারণে ব্যাহত হচ্ছিল চিকিৎসা। তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে গিয়ে এখন নি:স্ব মাখন মিয়ার পরিবার। দুই সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে খেয়ে পড়ে বেঁচে থাকাই ছিল কষ্টকর।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগ কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সোমবার রাতে মাখন গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়লে স্বজনরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার ওজনের কারণে হাসপাতালের ভেতরে জরুরী বিভাগে ঢুকানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতালের গেইটেই তাকে চিকিৎসা দিতে হয়েছে। তিনি বলেন, মাখনের শ্বাসকষ্ট সমস্যা ছিল। হাসপাতালে তার বুকে ব্যথা ছিল। নিয়ে আসার কিছুক্ষণ পর ইসিজি করার পর তার মৃত্যু নিশ্চিত নিশ্চিত করেন এই চিকিৎসক।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *