৬ উইকেটে প্লে অফে দিল্লি

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক: আইপিএলে সরাসরি প্লে অফ নিশ্চিত করার ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল বিরাট কোহলির রয়াল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ও তরুণ শ্রেয়াস আয়ারের দিল্লি ক্যাপিটালস। জিতলেই প্লে অফে। হারলে টিকে থাকতে হবে সমীকরণের মারপ্যাচে। এমন ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতে প্লে অফে চলে গেছে দিল্লি। অবশ্য হেরেও কলকাতা নাইট রাইডার্সের চেয়ে রান রেটে বেশ এগিয়ে থাকায় তৃতীয় হয়ে শেষ চারে ঠাঁই নিয়েছে বিরাট কোহলির ব্যাঙ্গালুরু।

সোমবার আবুধাবিতে টস জিতে বিরাট কোহলিদের ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান দিল্লির অধিনায়ক স্রেয়াশ। ব্যাট করতে নেমে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি ব্যাঙ্গালুরুর ব্যাটসম্যানরা। দেবদুত পাড্ডিকালের হাফ সেঞ্চুরি, এবি ডি ভিলিয়ার্সের ৩৫ রান সত্বেও ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রানের লড়াকু পুঁজি গড়ে ব্যাঙ্গালুরু।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যর্থ হন দিল্লির ওপেনার পৃথ্বি শ। ৯ রান করে ৬ মোহাম্মদ সিরাজের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন। পরে শিখর ধাওয়ান ও আজিঙ্কা রাহানের অববদ্য জুটি দলকে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে দেয়। এ জুটি গিয়ে ভাঙে ১০৯ রানে। ধাওয়ানকে আউট করেন শাহবাজ আহমেদ। আউট হওয়ার আগে ৪১ বলে ৬ বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৪ রান করেন ধাওয়ান।

ধাওয়ানের আউটের রাহানেকে সঙ্গ দিতে নামেন অধিনায়ক স্রেয়াশ আইয়ার। তবে আইয়ার বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি। ১৭তম ওভারে শাহবাজের বলে ৮ রানে আউট হয়ে ফেরেন তিনি। এরপর রাহানের সঙ্গী হন রিষভ পন্থ। পরের ওভারেরই ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন আজিঙ্কা রাহানে। আউট হওয়ার আগে ৪৬ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কার মারে ৬০ রান করেন রাহানে।

রাহানে যখন আউট হন তখন জয়ের জন্য ২ ওভারে ১৫ রানের প্রয়োজন দিল্লির। হাতে ৬ উইকেট। আর এই ১৪ রান হেসেখেলেই পূরণ করে নেন ঋষভ পন্থ ও মার্কুস স্টইনিস। পন্থ ৮ রানে ও স্টইনিস ১০ রানে অপরাজিত থেকে ২ ওভার বাকি থাকতেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দিল্লি।

ফলে ৬ উইকেটে কোহলির রয়াল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুকে হারায় দিল্লি ক্যাপিটালস।

লিগে ১৩ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ১৪ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানারআপ হওয়া নিশ্চিত হলো দিল্লি ক্যাপিটালসের। তৃতীয় দল হিসেবে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে প্লে অফ নিশ্চিত হলো ব্যাঙ্গালুরুরও। তাদের রান রেট -০.১৭২। কেকেআরেরও পয়েন্ট ১৪। তবে তাদের রানরেট -০.২১৪। শেষ ম্যাচে কেকেআরের সমর্থকদের হায়দরাবাদের পরাজয় কামনা করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। ১৩ ম্যাচে হায়দরাবাদের পয়েন্ট ১২। রান রেট ০.৫৫৫।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *