৭ মাস পর ১২ বল খেলে ইমরুলের ফেরা

খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক: ধারণা করা হয়েছিল, শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়েই বুঝি ব্যাট-বল হাতে মাঠে নামবেন টাইগাররা। তবে ঐ সফর বাতিল হওয়ায় শেষপর্যন্ত দেশের মাটিতেই ব্যাট-বল হাতে গা গরমের ম্যাচে নেমেছেন টাইগাররা। অনেক অপেক্ষার পর অবশেষে শুরু হয়ে গেল ক্রিকেটারদের ব্যাট ও বলের লড়াই।

করোনাভাইরাসের কারণে গত মার্চের তৃতীয় সপ্তাহে বন্ধ হয়েছে দেশের ক্রিকেট। তার প্রায় ৪ মাস পর জুলাইয়ে ব্যক্তিগত উদ্যোগে শুরু হয়েছে ক্রিকেটারদের অনুশীলন। সেটাও চলছে দুই মাসের বেশি সময় ধরে। এর মধ্যে জাতীয় দলের ভিনদেশি কোচরাও যোগ দিয়েছেন। যা এখন রূপ নিয়েছে দলীয় অনুশীলন ক্যাম্পে।

সেই অনুশীলন পর্বেরই অংশ হিসেবে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজনের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যার প্রথমটি শুরু হয়েছে আজ (শুক্রবার) সকাল সাড়ে ৯টায়। আগেই জানা, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন আর ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুকের নামকরণেই দুই দল মাঠে নামবে।

শুক্রবার সকালের খবর, নাজমুল হোসেন শান্তর নেতৃত্বে ওটিস গিবসন একাদশ টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে। দলের পক্ষে ওপেন করেছেন ইমরুল কায়েস ও সাইফ হাসান। তবে সুবিধা করতে পারেননি বাঁহাতি ইমরুল।

গত ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে ইস্ট জোনের হয়ে সবশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। এর প্রায় সাত মাস পর খেলতে নেমে ৭ রানেই আউট হয়েছেন ইমরুল। ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন সাজঘরে। আউট হওয়ার আগে ১২ বলে এক চারের মারে ৭ রান করেছেন তিনি।

বল হাতে রায়ান কুক একাদশের বোলিং শুরু করা দ্রুতগতির পেসার তাসকিনের বলে উইকেটের পেছনে ইমরুল কায়েসের ক্যাচটি ধরেছেন নুরুল হাসান সোহান। নিজের দ্বিতীয় ও দিনের তৃতীয় ওভারেই আঘাত হেনেছেন তাসকিন। তিন নম্বরে নেমেছেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

শুক্রবার ম্যাচের প্রথম ঘন্টা শেষে ওটিস গিবসন একাদশের স্কোর ১২ ওভার শেষে ১ উইকেটে ৪৩ রান। ডানহাতি ওপেনার সাইফ ২৮ ও ওপেনার শান্ত ৭ রানে ব্যাট করছেন।

উল্লেখ্য, প্রথম দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলছেন না ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও পেসার শফিউল ইসলাম। এছাড়া দ্বিতীয় পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ এলেও, পর্যবেক্ষণে রাখায় এ ম্যাচে জায়গা হয়নি আরেক পেসার আবু জায়েদ রাহীরও। তৃতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামতে পারেন তিনি।

ওটিস গিবসন একাদশ: সাইফ হাসান, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাঈম হাসান, হাসান মাহমুদ, এবাদত হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

রায়ান কুক একাদশ: ইয়াসির আলী রাব্বি, সাদমান ইসলাম অনিক, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ ও আল আমিন হোসেন।

 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *