একরাতেই বাড়ল পেঁয়াজের ঝাঁজ

অর্থ-বাণিজ্য জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: হঠাৎ করেই রাজধানীর বাজারগুলোতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে। একদিনে খুচরা বাজারে কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ১০ টাকা পর্যন্ত। আর পাইকারি বাজারে কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ৯ টাকা পর্যন্ত।

হঠাৎ পেঁয়াজের এই দাম বাড়ার কারণ হিসেবে পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে এখন দেশি যে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে, তা মুড়ি কাটা। এই পেঁয়াজের সরবরাহ আস্তে আস্তে শেষ হয়ে যাচ্ছে। এ কারণে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে।

রোববার রাজধানীর বিভিন্ন বাজারের খুচরা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মানভেদে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৮ টাকা। যা গত শুক্রবারও ৩০ থেকে ৩৫ টাকার মধ্যে ছিল। কিন্তু শনিবার হঠাৎ করেই পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে। এ কারণে খুচরা ব্যবসায়ীরাও দাম বাড়িয়ে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন।

মালিবাগ হাজীপাড়ার ব্যবসায়ী মো. জাহাঙ্গীর পেঁয়াজের দামের বিষয়ে বলেন, এভাবে পেঁয়াজের দাম বাড়বে কল্পনাও করতে পারিনি। আগে যদি জানতাম পেঁয়াজের এমন দাম বাড়বে, তাহলে যা টাকা ছিল সব দিয়ে পেঁয়াজ কিনে রাখতাম।

তিনি বলেন, সাধারণত কোনো কিছুর দাম বাড়ে শুক্রবার অথবা বৃহস্পতিবার। কিন্তু এবার চুপিচুপি শনিবার পেঁয়াজের দাম বাড়ল। আমাদের ধারণা রোজার সময় এগিয়ে আসায় পেঁয়াজের এই দাম বেড়েছে। এখন দাম বাড়ায় রোজার ভেতর নতুন করে আর পেঁয়াজের দাম নাও বাড়তে পারে।

খুচরা ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি পেঁয়াজের দাম বাড়ার তথ্য দিয়েছেন পাইকারি ব্যবসায়ীরাও। শ্যামবাজার পেঁয়াজ ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও রাজ ট্রেডার্সের মালিক হাজী মোহাম্মদ মাজেদ এ বিষয়ে বলেন, আগে আমরা পেঁয়াজের কেজি ২৭-২৮ টাকা বিক্রি করেছি। এখন ৩৬-৩৭ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। কাঁচামালের দাম কখন বাড়ে কখন কমে বলা মুশকিল।

রোজা কাছাকাছি আসায় এখন পেঁয়াজের দাম বাড়ছে কি এবং রোজার ভেতরে পেঁয়াজের দাম আরও বাড়ার সম্ভাবনা আছে কি- এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, রোজায় দাম বাড়বে না। ব্যবসাদারদের তো ব্যবসা করে খেতে হবে।

কাওরানবাজারের খান অ্যান্ড সন্স বাণিজ্যালয়ের গৌতম বাবু পেঁয়াজের দামের বিষয়ে বলেন, এখন পেঁয়াজের দাম একটু বেশি। দুদিন আগে আমরা দেশি পেঁয়াজের কেজি ৩০-৩২ টাকা বিক্রি করেছি। এখন ৩৮-৩৯ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

তিনি বলেন, এখন বাজারে যে পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে তা মুড়িকাটা। বাজারে এই পেঁয়াজের সরবরাহ কমে গেছে, এ কারণে দাম বেড়েছে। তবে ১৫-২০ দিন পর হালি পেঁয়াজ (ভালো মানের) ওঠা শুরু হবে। তখন পেঁয়াজের দাম কমে যাবে। সে হিসাবে আমাদের ধারণা এবার রোজায় পেঁয়াজের দাম না বেড়ে উল্টো কমতে পারে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *