ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির গ্লোবাল আইসিটি এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড অর্জন

কর্পোরেট কর্ণার শিক্ষাঙ্গন

গ্লোবাল আইসিটি এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ও অনলাইন এডুকেশনে বাংলাদেশে একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে শ্রেষ্ঠত্ব প্রমান করল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতের সংগঠনগুলোর জোট ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি এন্ড সার্ভিসেস এলায়েন্স (উইটসা) কর্তৃক এ স্বীকৃতি পেল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। গত শনিবার (১৪নভেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত তথ্য ও যোগাযোগ খাতের বিশ্ব সম্মেলন ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেনোলজি ২০২১ এর ৮৫টি দেশের সদস্য রাষ্ট্রের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে এ পুরষ্কার ঘোষণা করাহয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. এস এম মাহাবুব-উল হক মজুমদার উইটসার আঞ্চলিক পরিচালক শহীদ উল মুনীর এরকাছ থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে উইটসার মহাসচিব ড. জেমস্ এইচ পয়জান্ট, পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তথ্য প্রযুক্তিখাতের শীর্ষ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।
বাংলাদেশ থেকে মাত্র ৩টি অর্গানাইজেশন এবারের উইটসায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পাওয়ার গৌরব অর্জন করে। তার একটি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। পুরস্কার ঘোষনার প্রাক্কালে উইটসার চেয়ারম্যান ইয়ান্নিস সিরোস বলেন, ২০২১ সালের গ্লোবাল আইসিটি এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড এর জন্য ১০০টি একক ও উল্লেখযোগ্য প্রতিষ্ঠান মনোনীত হয় তার মধ্যে জুরি বোর্ডের বিচারে সবার সাথে প্রতিযোগীতা করে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শ্রেষ্ঠ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। বিশ্বের ৮৫টি দেশের তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা এ পুরস্কারের জন্য বিশ্বেও বিভিন্ন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে মনোনয়ন প্রদান করে থাকেন।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *