পরিবহন ধর্মঘটের প্রভাব নেই হিলি স্থলবন্দরে

অর্থ-বাণিজ্য

ডেস্ক রিপোর্ট : জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। বন্দরটি দিয়ে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি সচল রয়েছে। হিলি পানামা পোর্টে সব ধরনের পণ্যবাহী ট্রাক লোড-অনলোড চলছে। তবে বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার গণপরিবহন।

হিলি পানামা পোর্ট লিমিটেডের গণসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাফ হোসেন প্রতাব মল্লিক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, সারাদেশে পরিবহন ধর্মঘট চললেও হিলি বন্দরে এর কোনো প্রভাব পড়েনি। গতকাল এ বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি স্বাভাবিক ছিল। আজও পণ্যবাহী ট্রাক দেশে প্রবেশ করছে।

রোববার (৭ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, ভারতীয় পণ্য নিয়ে একটি ট্রাক দেশে প্রবেশ করে। পানামা পোর্টে পণ্য নিতে বাংলাদেশি ট্রাকগুলো বন্দরে প্রবেশ করছে। তবে বন্দর থেকে দূরপাল্লার ও আন্তঃজেলা কোনো গণপরিবহন ছেড়ে যায়নি।

পাথর আমদানিকারক রমিজ উদ্দিন বলেন, বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি স্বাভাবিক থাকলেও দেশের বাজারে পাথর পাঠাতে গুণতে হচ্ছে বেশি ভাড়া। বন্ধের কারণে অনেকেই গাড়ি বের করতে চাচ্ছে না।

হিলি আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুনুর রশিদ বলেন, সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সচল রয়েছে। গতকালের মতো আজও বন্দরের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেকেন্দার আলী জানান, বেশ কিছুদিন থেকে ভারতে যাত্রীর চাপ কম রয়েছে। গত দুইদিনে কোনো ভারত ফেরত যাত্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *