স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড আনল ‘স্মার্ট’ ক্রেডিট কার্ড

অর্থ-বাণিজ্য

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : স্মার্ট’ নামে একটি নতুন ক্রেডিট কার্ড চালু করেছে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, যাতে পাওয়া যাবে বিশেষ ছাড়সহ বাড়তি কিছু সুবিধা। রোববার ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এই নতুন কার্ডের উদ্বোধন করা হয়। স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক বলছে, বাংলাদেশে যারা ১৯৮১ সাল থেকে ১৯৯৬ সালের মধ্যে জন্ম নিয়েছেন, তাদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে এবং মানুষকে অনলাইন লেনদেনে উদ্বুদ্ধ করতে নতুন এই স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড বজারে এনেছে তারা। এই কার্ড পেতে হলে অন্তত ১৯ বছর বয়স হতে হবে এবং ২২ হাজার টাকার বেশি মাসিক আয় মাসে থাকতে হবে। বছরে ৩ লাখ টাকার লেনদেন করলে এই কার্ডের কোন ফি দিতে হবে না ।
স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের রিটেইল ব্যাংকিং এর প্রধান সাব্বির আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এই কার্ড ব্যাবহার করলে একজন ব্যবহারকারী বছরে ‘২২ হাজার টাকা’ খরচ কমাতে পারবেন। “একটি দেশে যখন ১ শতাংশ ডিজিটাল পেমেন্ট বাড়ে তখন সেই দেশের জিডিপি দশমিক শূন্য ২ শতাংশ বাড়ে। করোনাভাইরস মহামারীর কারণে বাংলাদেশের ডিজিটাল পেমেন্ট বেড়েছে। আমরা আমাদের এই নতুন ক্রেডিট কার্ডটি এমনভাবে ডিজাইন করেছি যাতে মানুষ আরো বেশি বেশি ডিজিটাল পেমেন্ট করে।”
স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাসের এজাজ বিজয় সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনাভাইরস মহামারীর মধ্যে বাংলাদেশে ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন ১১৫ শতাংশ বেড়েছে। আর অনলাইন পেমেন্ট বেড়েছে ৪০ শতাংশ। সামনে তা আরো বাড়বে। এই কার্ড ব্যবহারে করে টাকা পরিশোধ করলে দারাজ, ফুডপান্ডা, পাঠাও এবং পিজাহাটে ছাড় পাওয়া যাবে। এছাড়া এ ব্যাংকের অন্যান্য কার্ডের বিভিন্ন সুবিধাও স্মার্ট কার্ডে মিলবে। স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ডের ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেটিং করপোরেট অ্যাফেয়ার্সের প্রধান বিটপি দাস চৌধুরী এবং হেড অফ কার্ড তৌফিক ইমাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *